28 C
Dhaka, BD
Home Blog Page 860

খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন পরিবারের সদস্যরা

1728

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে কারাগারে দেখা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি, দুই নাতনি জাফিয়া ও জাহিয়ার সঙ্গে আরও ছিলেন খালেদা জিয়ার ভাই ও তার স্ত্রী এবং বোনও। শনিবার বিকাল ৪টার দিকে ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে যান তারা। কারাগার ও বিএনপি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত সচিব আদুস সাত্তার বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসনের পরিবারের সদস্যরা পহেলা বৈশাখে তার সঙ্গে দেখা করা কথা ছিল। তবে তাদের মধ্যে কারা দেখা করেছেন তা আমি জানি না।

এবারের পহেলা বৈশাখ নিজের দলের নেতাকর্মীদের ছাড়াই কেটেছেন খালেদা জিয়ার। প্রতি বছর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বৈশাখ উপলক্ষে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতেন তিনি। কিন্তু এবার কারাগারে থাকায় দলের সাংস্কৃতিক সংগঠন জাসাদের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি এই সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘প্রতি বছর আমাদের বৈশাখের অনুষ্ঠানে থাকতেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এখন তিনি কারাগারে। একটি মিথ্যা মামলায় অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে তাকে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ৫-এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামানের আদালত খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই আদালত খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয় আসামির সবাইকে মোট ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা ৮০ পয়সা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেন। এ অর্থ দণ্ডের টাকা প্রত্যেককে সমান অঙ্কে প্রদান করতে হবে বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়। রায়ের পর থেকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে আছেন খালেদা জিয়া।

দু’হাতে অস্ত্র কিনছেন যুবরাজ

0

দুই হাতে অস্ত্র কিনছে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এক সপ্তাহের মধ্যে পশ্চিমের দুই দেশের সঙ্গে বড় ধরনের অস্ত্র আমদানি চুক্তি করেছে সৌদি আরব। ইউরোপ সফরে গিয়ে ফ্রান্সের পর এবার স্পেনের সঙ্গেও অস্ত্রচুক্তি করলেন যুবরাজ সালমান। বৃহস্পতিবার স্পেন থেকে যুদ্ধজাহাজ কেনার জন্য সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান ২২০ কোটি ডলারের একটি অস্ত্রচুক্তি করেছেন। চুক্তির আওতায় স্পেনের রাষ্ট্রীয় জাহাজ নির্মাণকারী কোম্পানি নাভানতিয়া পাঁচটি যুদ্ধজাহাজ বিক্রি করবে সৌদি রাজকীয় নৌবাহিনীর কাছে।

এছাড়া স্পেনের সামরিক বাহিনী ও ঠিকাদাররা সৌদি আরবে একটি জাহাজ নির্মাণ কেন্দ্র তৈরি করে দেবে।

অস্ত্রচুক্তিতে সই করেন সৌদি যুবরাজ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী মুহাম্মাদ বিন সালমান। এর আগে তিনি স্পেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মরিয়া ডলোরেস ডি কোসপেডালের সঙ্গে বৈঠকে করেন। খবর বিবিসির।

স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্স ইন্সটিটিউটের (এসআইপিআরআই) ২০১৭ সালের তথ্যানুসারে, বিশ্বের শীর্ষ অস্ত্রক্রয়ের দেশের তালিকায় ভারতের পরে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সৌদি আরব। অস্ত্রক্রয় বাড়িয়ে সৌদি যুবরাজ যুদ্ধ মিশন শুরু করেছেন বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

দারিদ্র্যপীড়িত ইয়েমেনের হামলা আরও জোরদার ও আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানকে শায়েস্তা করার লক্ষ্যেই বিশ্বের অস্ত্রসমৃদ্ধ দেশগুলো থেকে যুদ্ধজাহাজ, যুদ্ধবিমান, ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ ক্রয় করছে সৌদি আরব।

২০৩০ সালের মধ্যে দেশীয় রসদে অস্ত্র উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন সৌদি যুবরাজ।

এ লক্ষ্য পূরণে উঠেপড়ে লেগেছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলোকে এর প্রধান অংশীদার বানাতে চাইছেন সালমান। এ জন্য পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে অস্ত্র চুক্তিসহ সামরিক বিনিয়োগ চুক্তি করছেন তিনি।

এর আগে তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ফ্রান্সে গিয়েছিলেন সালমান। ওই সফরে ফ্রান্সের সঙ্গে সৌদি আরবের মধ্যে ২০টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে, যার মোট আর্থিক মূল্য ১ হাজার ৮০০ কোটি ডলার। সবচেয়ে বড় চুক্তিটি হয়েছে সৌদি আরামকো ও ফ্রান্সের টোটাল কোম্পানির সঙ্গে।

চুক্তি অনুযায়ী, সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা জুবাইল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিটিতে একটি পেট্রোকেমিক্যাল কমপ্লেক্স গড়ে তোলা হবে, এতে ফ্রান্স বিনিয়োগ করবে ৯০০ কোটি ডলার। ফ্রান্স বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অস্ত্র রফতানিকারক দেশ। তারা সৌদি আরবকে তাদের গুরুত্বপূর্ণ ক্রেতা হিসেবে দেখে।

পশ্চিমা দেশগুলোর গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র ক্রেতাও এখন তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরব।

আমরা আওয়ামী লীগের সঙ্গে শরিক হয়ে থাকতে চাই : এরশাদ

0

আওয়ামী লীগের সাথে শরিক থাকার শর্ত খোলামেলা করে দিয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি, আপনি আমাদের অংশীদার করে নেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে ৭০টি আসন দিন, আর ১০ থেকে ১২টি মন্ত্রণালয় দিন। আমরা আওয়ামী লীগের সঙ্গে শরিক হয়ে থাকতে চাই। আর আমাদের কথা মতো আসন আর মন্ত্রণালয় না দিলে আমরা এককভাবে ৩০০ আসনেই প্রাথী।’

শনিবার রংপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

চার দিনের উত্তরাঞ্চল সফরের জন্য বিমানযোগে এসে এরশাদ বেলা ১২টায় নীলফামারীর সৈয়দপুরে নামেন। সেখান থেকে সার্কিট হাউজে এলে তাকে গার্ড অব অনার দেয় পুলিশ। পরে তিনি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন এরশাদের জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা, বিরোধী দলীয় হুইপ শওকত চৌধুরী এমপি, কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এস.এম. ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর, রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব এসএম ইয়াসির, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য শাফিউল ইসলাম শাফী, হাজি আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

পরে তিনি রংপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজে বর্ষবরণের বিশেষ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বিএনপি প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, বিএনপির অবস্থা ভালো না। তারা নির্বাচনে আসুক না আসুক আমরা নির্বাচনে অংশ নেবো। আমাকে ৫টি বছর জেল খাটিয়েছে, জামিন দেননি খালেদা জিয়ার সরকার। আমাকে জেলে রেখে আমার প্রতি যে অত্যাচার করেছিল তার প্রতিফল এখন পাচ্ছে।

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, দেশের সংবিধানে আছে কোটা পদ্ধতি। সে কারণে কোটা পদ্ধতি থাকতেই হবে। তবে এটা যৌক্তিক পর্যায়ে নামিয়ে আনা জরুরি। এটা কারো পক্ষেই বাতিল করা যাবে না।

তিনি বলেন, অব্যাহত আন্দোলনের কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনের দুঃখে কোটা পদ্ধতি বাতিল করেছেন। আমার মনে হয় সবগুলো কোটা পদ্ধতি বাতিল করতে তিনি নিজেও চান না। আগে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যে ৩০ ভাগ কোটা ছিল এটা ঠিক ছিল না। মাত্র ২ লাখ মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য এত কোটার প্রয়োজন ছিল না। এটা অযৌক্তিক ছিল। ফলে কোটা ঠিক করে দিলেই চলবে। তবে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কিছু হলেও কোটা পদ্ধতি থাকা উচিত।

রংপুরে জাতীয় পার্টির অবস্থান সম্পর্কে এরশাদ বলেন, রংপুরে জাতীয় পার্টির প্রতি আবারও মানুষের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাব সারা দেশে পড়বে। আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসবে।

খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, অর্থের অভাবে এবং ভালো প্রার্থী না পাওয়ায় সেখানে দলের প্রার্থী দেওয়া হয়নি। রংপুরে সিটি নির্বাচনে আমরা ব্যাপকভাবে বিজয়ী হয়েছি। তাই খারাপ রেজাল্ট করতে চাই না। তাছাড়া এখন আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য জাতীয় নির্বাচন এবং লক্ষ্য হলো ক্ষমতায় যাওয়া।

এরশাদ রবিবার সকালে রংপুর টাউন হল মাঠে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক কাউন্সিলে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। সোমবার তিনি নীলফামারীর জলঢাকা ডাকবাংলো মাঠে জাতীয় পার্টিতে যোগদান উপলক্ষে জনসভায় প্রধান অতিথি থাকবেন।

প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরব ও যুক্তরাজ্য যাচ্ছেন বিকালে

0

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি আরব ও যুক্তরাজ্যে ৮ দিনের সরকারি সফরে আজ রোববার ঢাকা ত্যাগ করবেন। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি এদিন বিকালে সৌদি আরবের দাম্মামের উদ্দেশে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।

একই দিনে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ৫ মিনিটে ফ্লাইটটি দাম্মাম বাদশাহ ফাহাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা। শেখ হাসিনা ১৬ এপ্রিল সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় আল জুবাইল প্রদেশে অনুষ্ঠেয় ‘গালফ শিল্ড-১’ নামের একটি যৌথ সামরিক মহড়ার কুচকাওয়াজ ও সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

তিনি সৌদি বাদশাহ ও দুটি পবিত্র মসজিদের হেফাজতকারী সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের আমন্ত্রণে ওই অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন।

সৌদি আরব উপসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তা সহযোগিতা আরও জোরদার করার লক্ষ্যে ২৩টি বন্ধুপ্রতিম দেশের অংশগ্রহণে মাসব্যাপী এ সামরিক মহড়ার আয়োজন করেছে।

১৮ মার্চ শুরু হওয়া এ মহড়ায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর ১৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নিয়েছে।

গালফ শিল্ড-১ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কমনওয়েলথ সরকারপ্রধানদের বৈঠকে (সিএইচওজিএম) যোগদানের জন্য ১৬ এপ্রিল বিকালে একটি বিশেষ ফ্লাইটে লন্ডনের উদ্দেশে দাম্মাম ত্যাগ করবেন। ওই দিন রাতেই লন্ডনের হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটির অবতরণের কথা।

Dhaka, BD
haze
28 ° C
28 °
28 °
78 %
4.1kmh
100 %
রবি
27 °
সোম
33 °
মঙ্গল
34 °
বুধ
34 °
বৃহঃ
34 °

সর্বাধিক পঠিত