ইরাকের সামরিক সক্ষমতা বাড়াতে চায় ইরান

0
2041

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ইরাকের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা শক্তিশালী করার লক্ষ্যে বাগদাদকে সব রকম সহযোগিতা করতে প্রস্তুত ইরান। এমনটাই জানিয়েছেন ইসলামি প্রজাতন্ত্র দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) ইরান সফররত ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লে. জেনারেল জুমা আনাদ সাদুন তেহরানে নিজের ইরানি সমকক্ষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন।

আমির হাতামি বলেছিলেন, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোকেই এ অঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে; বহিঃশক্তি দিয়ে এই নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। মধ্যপ্রাচ্যে বহিঃশক্তির উপস্থিতি এ অঞ্চলের নিরাপত্তাহীনতার মূল কারণ।

ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ইরাকের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি তেহরানের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্রটির পুনর্গঠনের কাজে ইরান অংশ নিতে আগ্রহী।

জেনারেল হাতামি বলেন, আমেরিকার নেতৃত্বাধীন বৃহৎ শক্তিগুলোর এ যাবত কালের আচরণ থেকে বোঝা যায়, মধ্যপ্রাচ্যকে দীর্ঘমেয়াদে অনিরাপদ করে রাখার জন্য তাদের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা রয়েছে। কাজেই এ রকম কুচক্রী পরিকল্পনার বিরুদ্ধে ইরান ও ইরাকসহ মধ্যপ্রাচ্যের সব দেশকে রুখে দাঁড়াতে হবে।

সাক্ষাতে প্রতিবেশী ও বন্ধুপ্রতীম দেশ ইরান সফরে আসতে পেরে নিজের সন্তোষ প্রকাশ করেন ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আনাদ সাদুন। তিনি বলেছিলেন, ইরাক থেকে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ (আইএস) বিতাড়নে ইরানের গুরুত্বপূর্ণ সহযোগিতার কথা বাগদাদ চিরকাল মনে রাখবে।

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালে ইরাকের সাবেক স্বৈরশাসক সাদ্দাম সরকারের পতনের পর থেকে বাগদাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রক্ষা করে আসছে ইরান।

সূত্র : পার্সটুডে