বরিশালের হারে আফিফ ও নিজের ব্যর্থতা দেখছেন তামিম

3
144

স্পোর্টস ডেস্ক : টুর্নামেন্ট শুরুর আগে দল নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন তামিম ইকবাল। তবুও ভালো কিছুর আশায় শুরু করেন বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ। প্রথম ম্যাচ জয়ের দাঁড়প্রান্তে দাঁড়িয়েও শেষ ওভারে হারতে হয়েছিল ফরচুন বরিশালকে।

দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের দেখা পেলেও তৃতীয় ম্যাচে এসে আবারও হারতে হয়েছে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায়। এজন্য নিজের সঙ্গে আফিফ হোসেনের দায়িত্ব পালনের ব্যর্থতার দিকটি সামনে আনলেন বরিশাল অধিনায়ক।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের বিপক্ষে ভালো অবস্থায় থেকে দুই সেট ব্যাটসম্যানের আউট হওয়া ভালো চোখে দেখছেন না তামিম। একজন তিনি নিজে, ৩২ বলে ৩২ রান করে আউট হয়েছেন। অন্যজন জাতীয় দলের জার্সিতে বেশ কিছু ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা থাকা আফিফ, যিনি ২২ বলে ২৪ রান করে ফেরেন প্যাভিলিয়নে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেছেন, ‘আমরা দুজনই অভিজ্ঞ, আমাদের দায়িত্ব নেওয়া উচিত ছিল। টি-টোয়েন্টিতে ২০-৩০ রানে আউট হয়ে যাওয়া পাপের মতো। কারণ আমরা যথেষ্ট বল খেলতে পেরেছি, উইকেটের আচরণ যাচাই করতে পেরেছি। আমি আর আফিফ যেহেতু উইকেটে অনেকক্ষণ থেকেছি, আমাদের অন্তত একজনের উচিত ছিল ম্যাচ শেষ করে আসা। ওই দুই উইকেটই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। ওই সময়ে ভালো ব্যাট করলে ম্যাচ আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকতো। হৃদয় আর ইরফানের উইকেট বেশি মূল্যবান ছিল, কারণ তখনও আমরা ম্যাচে টিকে ছিলাম।’

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম আগে ব্যাটিং করে ১৫১ রান করেছিল। তামিম মনে করেন, ১৫ রান বেশি দিয়েছেন তারা, ‘তারা (চট্টগ্রাম) ব্যাট হাতে ভালো শুরু করেছিল, এরপর আমরাও ম্যাচে ফিরেছিলাম। উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য এতো ভালো ছিল না। তারপরও আমরা ১৫ রানের মতো অতিরিক্ত দিয়ে ফেলেছি।’

১৯তম ওভারে আবু জায়েদ রাহীকে তিন ছক্কা হজম করতে হয়। রাহীকে কাঠগড়ায় দাঁড় না করালেও তামিম মনে করেন, ‘আমরা গুরুত্বপূর্ণ সময়ে একটি ক্যাচ হাতছাড়া করেছি। এক ওভারে তিনটি ছক্কা হজম করতে হয়েছে। তবে খেলোয়াড়দের দোষ দেওয়ার কিছু নেই, এটা খেলারই অংশ। ব্যাট হাতে আমরাও ভালো শুরু পেয়েছিলাম। কিন্তু একপর্যায়ে উইকেট হারাতে থাকি।’

তিন ম্যাচ শেষে এক জয় বরিশালের পাশে। ফলের দিকে না তাকিয়ে সতীর্থদের খেলাটাকে উপভোগ করার পরামর্শ বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের, ‘মূল বিষয় হলো, আমরা খেলা উপভোগ করছি কিনা। ফল বড় কথা নয়। প্রথম ম্যাচ অনেক রোমাঞ্চকর ছিল। পরের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়েছি। আজকে আবার হারলাম। আমরা এই ম্যাচ থেকে কিছু শিক্ষা নিতে পারি। কারণ জয় কখনোই অসম্ভব ছিল না।’

3 COMMENTS

Comments are closed.