করোনায় আক্রান্ত নন অভিনেতা আব্দুল কাদের, স্বস্তিতে পরিবার

43
309

বিনোদন ডেস্ক : ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে ভারতের চেন্নাইয়ের ক্রিস্টিয়ান মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরেছেন অভিনেতা আব্দুল কাদের। তাকে বর্তমানে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে৷ রাখা হয়েছে আইসিউতে।

বিখ্যাত ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকের বদি খ্যাত এ অভিনেতার অবস্থা এখনো সংকটাপন্ন। তবে আগের চেয়ে শারীরিক অবস্থা একটু ভালো বলে জানিয়েছেন আব্দুল কাদেরের পুত্রবধূ জাহিদা ইসলাম জেমি।

তার শ্বশুর করোনায় আক্রান্ত হননি বলেও নিশ্চিত করেছেন জেমি।

তিনি বলেন, ‘একজন মানুষ মৃত্যুর সঙ্গে প্রতিমুহূর্তে যুদ্ধ করছেন৷ এসময় তার জন্য দোয়া না করে অনেকে মেতেছেন মৃত্যুর গুজব ছড়ানোয়৷ এ নোংরামির কোনো মানে নেই৷ বাবা আল্লাহর রহমতে একটু ভালো আছেন৷ আজ (২৪ ডিসেম্বর) তাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়া হতে পারে৷ সবাই উনার জন্য দোয়া করবেন।’

আব্দুল কাদেরের করোনায় আক্রান্ত হওয়া প্রসঙ্গে জেমি বলেন, ‘এটা আসলে ভুল তথ্য ছড়িয়েছে। বাবা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নন৷ ক্যান্সারের ইনফেকশনের কারণে তার লালা পরীক্ষার সময় করোনার সঙ্গে অনেক সাদৃশ্য পাওয়া যায়৷ এতে চিকিৎসকরা মনে করেছিলেন তার করোনা পজিটিভ৷ ২৩ ডিসেম্বর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনি করোনা নেগেটিভ৷ এটা খুবই স্বস্তির খবর।’

অভিনেতা আব্দুল কাদেরের ক্যান্সার ফোর স্টেজে রয়েছে৷ এ বিষয়ে জেমি বলেন, ‘বাবার ব্যাকপেইন ছিল। বেশ কিছুদিন ধরে আমরা দেশের বড় বড় হাসপাতালগুলোয় গিয়েছি। বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেও কেউ বাবার ব্যাক পেইনের কারণ উদঘাটন করতে পারলেন না। সর্বশেষ পুরো শরীর সিটি স্ক্যান করে জানা যায় বাবার টিউমার হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এরপর আমরা ভেতরে ভেতরে বাবাকে নিয়ে চেন্নাইয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করি। সেখানে গিয়ে চেকআপ করা হলে জানতে পারি বাবার ক্যান্সার। শুধু তা-ই নয়, সেটা পুরো শরীরে ছড়িয়ে গেছে।’

43 COMMENTS

  1. comment5, cheap sustiva, 090124, order zetia, shzlw, cost famvir, 695803, cheap oxytrol, =]]], buy extra super avana, moqjex, buy colospa uk, 219194, buy bystolic, >:[, purchase cialis professional, hfnzs, buy avana, %-PPP, order fertomid, :-DDD, buy confido online, >:-]], cost nizoral, pbt, buy zyrtec, lzynwl, price accupril, ubyba, discount aciphex, rarzx, cost augmentin, =(((, buy micronase, apaxxs,

Comments are closed.