হারারেতে হারের সংখ্যাই বেশি বাংলাদেশের

29
201

দীর্ঘ আট বছর পর আবারও জিম্বাবুয়ে সফর করছে বাংলাদেশ। বুধবার, ৭ জুলাই থেকে হারারেতে শুরু হবে একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি। তবে সাম্প্রতিক দুই দলের দেখায় যে কেউই বলে দেবে বাংলাদেশ এগিয়ে জিম্বাবুয়ের তুলনায়।

তবে অতীত ইতিহাস বলবে ঘরের মাঠে এগিয়ে জিম্বাবুয়ে। এর আগে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে খেলেছে ১৭ টি টেস্ট ম্যাচ। যেখানে সমান ৭টি ম্যাচে জয় আছে জিম্বাবুয়ের ও বাংলাদেশের। বাকি ৪টি ম্যাচ হয়েছে ড্র।

তবে জিম্বাবুয়ের হারারেতে দুই দলের পাঁচবারের দেখায় চার ম্যাচেই জয় পায় স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। এই মাঠে সবশেষ দেখায় অবশ্য জয় পায় বাংলাদেশ। ২০১৩ সালে সবশেষ জিম্বাবুয়ে সফরে টাইগাররা দুটি টেস্ট খেলেছিল হারারেতে। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ৩৩৫ রানে হেরে গেলেও পরের ম্যাচে জয় পায় ১৪৩ রানে।

এই মাঠে অতীত ভালো না থাকলেও একমাত্র টেস্ট ম্যাচটিতে বাংলাদেশের এগিয়ে থাকার বড় কারণ সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ফিরেছেন দলে। চোট কাটিয়ে ফিরেছেন মুশফিকুর রহিম।

দ্বিতীয়ত এই ম্যাচে খেলা হচ্ছে না জিম্বাবুয়ের দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার অধিনায়ক শন উইলিয়ামস ও ক্রেইগ আরভিন। তবে উইলিয়ামসের অনুপস্থিতিতে জিম্বাবুয়েকে নেতৃত্ব দেবেন দলের সেরা খেলোয়াড় ব্রেন্ডন টেলর।

বাংলাদেশ (সম্ভাব্য): সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস (উইকেট-রক্ষক), মেহেদী হাসান মীরাজ, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ ও শরিফুল ইসলাম।

জিম্বাবুয়ে (সম্ভাব্য): কেভিন কাসুজা, তকুদজওয়ানশে কাইতানো, রেগিস চকভা (উইকেট-রক্ষক), ব্রেন্ডন টেইলর (অধিনায়ক), মিল্টন শুম্বা, ডিওন মায়ার্স, ডোনাল্ড তিরিপানো, রয় কায়া, রিচার্ড নাগারাভা, টেন্ডাই চাতারা ও ব্লেসিং মুজারাবানি।

29 COMMENTS

Comments are closed.