27 C
Dhaka, BD
Home Blog

সিরাজগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

30

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় ট্রাকের ধাক্কায় এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও দুইজন।

বুধবার (১২ মে) সকালে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে জেলার সলঙ্গা থানার নলকা ব্রিজের পশ্চিম পাশের সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। তাৎক্ষনিকভাবে নিহত ও আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) জাহিদুল ইসলাম জানান, বুধবার সকালে টাঙ্গাইল থেকে হাটিকুমরুল গোলচত্বরমুখি ভাড়ায় চালিত একটি মোটরসাইকেল বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার নলকায় পৌছলে বিপরীতমুখী একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনায় আহত হন মোটরসাইকেলের দুই যাত্রী।

তিনি জানিয়েছেন, পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে সাখাওয়াত এইচ মেমোরিয়াল হাসপাতালে প্রেরণ করে। এরই মধ্যে ঘাতক ট্রাক ও এর চালককে আটক করা হয়েছে।

দিনে সাইকেল চুরি, রাতে ইয়াবা বিক্রি

21

নগরীতে সাইকেল চুরির সময় দুই চোরকে আটক করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ইয়াবাও উদ্ধার করা হয়।

গতকাল রাতে নগরীর ডবলমুরিং থানার বলিরপাড়া সিডিএ ১ নং গলির শেষ মাথা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আটককৃত দুইজন হলেন, আব্দুল মালেক রুমান (২২) ও বেলাল উদ্দিন রনি (২৮)। ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, আটককৃতরা মোট চারজনের সিন্ডিকেট। বাকি দুইজন হলেন, জনি ও রাজু। তারা চারজনই দিনের বেলা সাইকেল চুরি করে। আর রাতের বেলা ইয়াবা বিক্রি করে। তাদের দুইজন রেকি করে সাইকেলের অবস্থান নিশ্চিত করে। পরে চারজন মিলেই সেটা চুরি করে। অন্যদিকে তাদের মধ্যে একজন ইয়াবা সংগ্রহ করে। দুইজন ক্রেতা সংগ্রহ করে। বাকিজনের কাছে সেই ইয়াবা গচ্ছিত থাকে।

রাতে যখন তারা ইয়াবা বিক্রি করতে যাচ্ছিল তখনই বলিরপাড়া সিডিএ ১ নং গলির শেষ মাথার জুনাইদ কটেজে সাইকেল দেখতে পায়। তখনই তারা সেটা চুরি করতে যায়। কিন্তু চুরি করার সময় তা ঘরে থাকা সিসি ক্যামেরায় দেখে চিৎকার করেন বাসার লোকজন। তার চিৎকার শুনে লোকজন ছূটে এসে রুমানকে ধরতে পারলেও পালিয়ে যায় বাকিরা। পরে রুমানের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রনিকে আটক করা হয়। আটক করার সময় আব্দুল মালেক রুমানের পকেট থেকে ২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে জম্মু ও কাশ্মীরে শব-ই-কদর পালিত

43

স্বাস্থ্যবিধি মেনে জম্মু ও কাশ্মীর জুড়ে মুসলমানরা পবিত্র শব-ই-কদর বা লাইলাতুল কদর পালন করেছে। রাতটি মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)- এর নিকট পবিত্র কুরআন নাজিলের কারণে খুবই মর্যাদাপূর্ণ। তাই ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সেখানকার মুসলিমরা ইবাদত বন্দেগী ও জিকির আসকারের মাধ্যমে রাতটি কাটায়।

এই পবিত্র রাতকে ইসলামের সমস্ত রাতের চেয়ে সর্বাধিক মহিমান্বিত মনে করা হয়। তবে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে দরগা হযরতবাল ও জামেয়া মসজিদে নামাজ স্থগিত থাকে। মুসলমানরা স্থানীয় মসজিদে রাতভর নামাজ পড়ে এবং যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ইবাদত বন্দেগী করে রাতটি কাটায়। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির মধ্যে সেখানকার ধর্মীয় নেতারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার মাধ্যমে শবে কদর পালন করতে মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এই রাতে মুসলমানরা বেশিরভাগ সময় কুরআন তেলাওয়াত করে এবং রাতভর বিশেষ নামাজ পড়ে ব্যয় করেন।

এই বছরের ১ মে, জম্মু ও কাশ্মীর ওয়াক্ফ বোর্ড করোনভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসাবে কাশ্মীরে এটির সাথে সম্পর্কিত মসজিদ এবং মাজারগুলোতে আপাতত নিয়মিত নামাজ স্থগিত করার ঘোষণা করেছিল। অন্যথায়, এই উপলক্ষে, হজরতবল মাজার শ্রীনগর ও ডাউনটাউনের জামিয়া মসজিদে ঐতিহ্যবাহী বৃহত্তম জামাতটি দেখা যায়, যেখানে রাতের বেলা কয়েক হাজার মানুষ বিশেষ প্রার্থনায় যোগ দিতেন।

হজরতবাল মাজারে হযরত মুহাম্মদ (সা.)- এর পবিত্র নিদর্শন বা স্মৃতিচিহ্ন রাখে যা বিশেষ অনুষ্ঠানে তার উম্মতদের কাছে প্রদর্শিত হয়। কারণ, এটি মাজারের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভক্তকে আকৃষ্ট করে। মাজারটি ওয়াক্ফ বোর্ড দ্বারা পরিচালিত হয়। ওয়াকফ বোর্ডের এক কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন যে, মাজার এবং মসজিদে কোনও উদযাপন বা রাতভর নামাজ অনুষ্ঠিত হবে না।

গত বছর কোভিড-১৯ যখন বেশি ছিল তখন জম্মু ও কাশ্মীর জুড়ে কোথাও জামাতের সাথে রাতভর নামাজ পড়েনি। প্রশাসন ও মুসলিম আলেমগণ লোকদের ধর্মীয় সমাবেশ এড়াতে বলেছিলেন। ২০২০ সালে রামধন জুড়ে লোকজন নিজ নিজ বাড়িতে রাতভর নামাজ ও নিয়মিত নামাজ পড়েন।

বাসা ভাড়া দেয়ার কথা বলে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ করল মালিকের ছেলে

62

নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার কেওঢালা এলাকায় বাড়ি ভাড়া দেয়ার কথা বলে এক গার্মেন্টস কর্মীকে (৩০) বাড়ির মালিকের ছেলে ও তার এক সহযোগী ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১০) দুপুরে এ বিষয়ে ওই গার্মেন্টস কর্মী বাদী হয়ে বাড়িওয়ালার ছেলেসহ দু’জনের নাম উল্লেখ করে বন্দর থানায় মামলা করেছেন। এর আগে রোববার (৯ মে) দিবাগত রাত ১২টায় বন্দর ওই এলাকার বেঙ্গল ফ্লাইউড সংলগ্ন জঙ্গলে গণধর্ষণের এ ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ জানায়, রোববার (৯ মে) বিকেলে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানার কালিঘাট এলাকার এক নারী গার্মেন্টস কর্মী বাসা ভাড়া নেয়ার জন্য বন্দর উপজেলার কেওঢালা এলাকায় আসেন। এ সময় ওই এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে লিমন ও তার সহযোগী শাহ আলম বাড়ি ভাড়া দেয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়। পরে রাত ১২টায় গার্মেন্টস কর্মীকে কেওঢালা এলাকার বেঙ্গল ফ্লাইউড কারখানা সংলগ্ন জঙ্গলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় বন্দর থানায় মামলা হলে পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, অভিযোগ পেয়ে দ্রুত মামলা নিয়েছি। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধর্ষকদের গ্রেপ্তারের জন্য কেওঢালাসহ বন্দরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

গাজায় ইসরাইলি হামলায় হামাসের কমান্ডার নিহত

10

ইহুদিবাদী ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনের গাজায় ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সামরিক শাখা ইজেদিন আল-কাসাম ব্রিগেডের আবদুল্লাহ ফায়াদ নিহত হয়েছেন। হামাস সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে বিবিসি এ খবর প্রকাশ করেছে।

ইসরাইল জানিয়েছে, সোমবারের ওই হামলায় হামাসের তিন সদস্য নিহত হয়েছে। ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র লে. কর্নেল জোনাথন কনরিকাস সাংবাদিকদের বলেন, আমরা শুরু করেছি, আমরা গাজায় সামরিক টার্গেটগুলোতে হামলা করছি।

এর আগে, ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সামরিক শাখা ইযাদ্দিন কাসসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র জানিয়েছেন, আল-আকসা মসজিদ এবং পূর্ব বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের শেখ জাররাহ শরণার্থী শিবির থেকে ৬ ঘণ্টার মধ্যে ইসরাইলি সেনা প্রত্যাহার এবং ফিলিস্তিনি আটককৃতদের মুক্তি না দিলে এর জবাব দেয়া হবে। ডেডলাইন শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট পর সোমবার সন্ধ্যায় আল কাসসাম ব্রিগেড পূর্ব জেরুসালেমে অন্তত ১০টি রকেট হামলা চালায়। এই রকেট হামলার পর ইসরাইলি বাহিনী গাজা উপত্যকার বেসামরিক এলাকায় বর্বরোচিত কায়দায় বিমান হামলা করে।

কোয়ারেন্টিনে করোনা আক্রান্ত হলেই বিপদ কোহলিদের

1

ভারতের সামনে অপেক্ষা করছে দুই কঠিন পরীক্ষা। একটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল এবং ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। কিন্তু এর থেকেও বড় পরীক্ষা দিতে হবে কোয়ারেন্টিনে।

ইংল্যান্ড সফরে যাবার আগে মুম্বাইতে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে গোটা দলকে। কোয়ারেন্টিনের এই আট দিনে যদি কেউ করোনা আক্রান্ত হয় তবে তাকে দেশে রেখেই ইংল্যান্ড যাবে দল। এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

প্রায় চার মাসের এই লম্বা ইংল্যান্ড সফরে ক্রিকেটাররা সঙ্গে পাচ্ছেন তাদের পরিবারও। তাই শুধু ক্রিকেটারদেরই নয়, তাদের পরিবারের সদস্যদেরও দিতে হবে এই কঠিন পরীক্ষা। এদিকে গতকাল সোমবার (১০ মে) কোভিড ভ্যাকসিন নিয়েছেন বিরাট কোহলি। এর আগেও দলে থাকা কয়েকজন নিয়েছেন ভ্যাকসিন।

এ নিয়ে বোর্ডের এক কর্তা ভারতীয় গণমাধ্যমকে বলেন, “ক্রিকেটারদের অবগত করা হয়েছে, মুম্বাইয়ে কোয়ারেন্টিন চলাকালীন কেউ করোনা আক্রান্ত হলে তাকে নেওয়া হবে না ইংল্যান্ড সফরে। কেন না, ওই খেলোয়াড়ের জন্য বোর্ড ব্যক্তিগত বিমানের ব্যবস্থা করবে না।”

আগামী ১৮ জুন সাউদাম্পটনের রৌজ বোলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে নামবে ভারত। এরপর ইংল্যান্ডের সঙ্গে রয়েছে ৫ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ।

ভারতের স্কোয়াড: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), অ্যাজিঙ্কা রাহানে (সহ-অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, শুভামান গিল, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, চেতেশ্বর পূজারা, হনুমা বিহারি, ঋষভ পন্থ (উইকেট-রক্ষক), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবিন্দ্র জাদেজা, আক্সার প্যাটেল, ওয়াশিংটন সুন্দর, জসপ্রিত বুমরাহ, ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামী, মোহাম্মদ সিরাজ, শারদুল ঠাকুর ও উমেশ যাদব।

স্ট্যান্ডবাই: অভিমন্যু ঈশ্বরন, প্রসিধ কৃষ্ণা, আবেশ খান, অর্জন নাগওয়াসওয়ালা।

হিন্দুদের কুম্ভমেলা থেকে পুরো ভারতে ছড়িয়েছে করোনা

2

লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে ভারতের স্বাস্থ্যসেবা খাত। আইন-শৃংঙ্খলাও অবনতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। লাশ দাও না করে নদীতে ভাসিয়ে দেয়ার ঘটনাও ঘটছে।

এদিকে জানা গেছে গতমাসে ভারতে যখন সেই দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে লড়াই করছে, তারই মধ্যে হিমালয় অঞ্চলের শহর হরিদ্বারে কুম্ভমেলায় লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ হিন্দু সমবেত হয়। যদিও সবাই বলেছিলেন, এই কুম্ভমেলা এক ‘সুপার-স্প্রেডার ইভেন্ট’ অর্থাৎ ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস ছড়ানোর এক জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে পরিণত হবে।

এরপরের ঘটনা তো সবারই জানা। আনুমানিক ৯১ লাখ বাস্তবে আরও বেশি মানুষ গিয়েছিলেন এবারের মেলায়। কুম্ভমেলা থেকে ফিরে আসা লোকজনকে পরীক্ষা করে কোভিড সংক্রমণ ধরা পড়ে। আর তাদের থেকেই ছড়িয়ে পড়েছে পুরো ভারতজুড়ে।

এদেরই একজন পুরোহিত মাহান্ত দাস। তিনি কুম্ভমেলায় যোগ দেন ১৫ মার্চ। তখন ভারতের অনেক স্থানেই দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। উৎসব আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হওয়ার চারদিন পর, এপ্রিলের ৪ তারিখে ৮০ বছর বয়সী এই হিন্দু পুরোহিত করোনায় আক্রান্ত হন। এরপর তাকে একটি তাবুতে ফিরে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়।

কিন্তু একাকি আলাদা থাকার পরিবর্তে মাহান্ত শংকর দাস তার ব্যাগ গুছিয়ে একটি ট্রেন ধরলেন এবং প্রায় এক হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে বারাণসী পৌঁছালেন। সেখানে স্টেশনে তার ছেলে নগেন্দ্র পাঠক তাকে নিতে আসলেন এবং তারা আরও কিছু লোকের সঙ্গে একটি ট্যাক্সি শেয়ারে ভাড়া করে ২০ কিলোমিটার দূরের জেলা মির্জাপুরে তাদের গ্রামে পৌঁছালেন।

সেই পুরোহিত মাহান্ত দাস বেঁচে গেছেন ঠিকই। তবে তার মাধ্যমেই সংক্রমিত হয় তারই ছেলেসহ গ্রামের অনেকেই। যদিও ওই পুরোহিতের দাবি, তার কাছ থেকে কেউ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়নি। তার ছেলে নগেন্দ্র পাঠক জানান, তিনিও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। কিন্তু গত দুই সপ্তাহে গ্রামে জ্বর এবং কাশির উপসর্গ নিয়ে ১৩ জন মারা গেছে।

এই গ্রামে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মাহান্ত দাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে থাকতে পারে, আবার এটা নাও হতে পারে। কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তিনি দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করেছেন। যাত্রীর ভিড়ে ঠাসা একটি ট্রেনে ভ্রমণ করে, শেয়ারের ট্যাক্সিতে চড়ে তিনি হয়তো পথে পথে অনেক জায়গায় ভাইরাস ছড়িয়ে দিয়েছেন। আর এই পুরোহিতের মতো হাজারো মানুষ ছড়িয়ে পরেন পুরো ভারতজুড়ে।

রোগতত্ত্ববিদ ডা. ললিতকান্ত বলছেন, মাস্ক না পরে কাণ্ডজ্ঞানহীন তীর্থযাত্রীদের বড় বড় দল যখন নদীর তীরে দাঁড়িয়ে গঙ্গার বন্দনা করছে, তখন আসলে তারা দ্রুত ভাইরাস ছড়ানোর এক আদর্শ পরিবেশ তৈরি করছে। আমরা জানি যে গির্জায় কিংবা মন্দিরে যখন সমবেত মানুষ এক সঙ্গে কোরাসে গান গায়, সেটি তখন একটি ‘সুপার-স্প্রেডার ইভেন্টে’ পরিণত হয়

হরিদ্বারের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মেলা চলাকালেই কয়েক হাজার তীর্থযাত্রী কোভিড-পজিটিভ বলে ধরা পড়েছিল, যাদের মধ্যে কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় ধর্মীয় নেতাও ছিলেন। উত্তর প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব, নেপালের সাবেক রাজা জ্ঞানেন্দ্র শাহ এবং সাবেক রাণী কমল শাহ এই কুম্ভমেলা থেকে ফিরে আসার পর পরীক্ষা করে তারাও কোভিডে আক্রান্ত বলে জানা গেছে।

বলিউডের সঙ্গীত পরিচালক শ্রাবণ রাঠোরও এই কুম্ভমেলা থেকে ফেরার কদিন পর মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে মারা যান। মেলায় যোগ দিতে যাওয়া আরেকটি দলের নয় জন হিন্দু ঋষি মারা যান।

এই গ্রামে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মাহান্ত দাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে থাকতে পারে, আবার এটা নাও হতে পারে। কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তিনি দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করেছেন। যাত্রীর ভিড়ে ঠাসা একটি ট্রেনে ভ্রমণ করে, শেয়ারের ট্যাক্সিতে চড়ে তিনি হয়তো পথে পথে অনেক জায়গায় ভাইরাস ছড়িয়ে দিয়েছেন। আর এই পুরোহিতের মতো হাজারো মানুষ ছড়িয়ে পরেন পুরো ভারতজুড়ে।

রোগতত্ত্ববিদ ডা. ললিতকান্ত বলছেন, মাস্ক না পরে কাণ্ডজ্ঞানহীন তীর্থযাত্রীদের বড় বড় দল যখন নদীর তীরে দাঁড়িয়ে গঙ্গার বন্দনা করছে, তখন আসলে তারা দ্রুত ভাইরাস ছড়ানোর এক আদর্শ পরিবেশ তৈরি করছে। আমরা জানি যে গির্জায় কিংবা মন্দিরে যখন সমবেত মানুষ এক সঙ্গে কোরাসে গান গায়, সেটি তখন একটি ‘সুপার-স্প্রেডার ইভেন্টে’ পরিণত হয়।

পিরোজপুরে দুই আইনজীবীর চেম্বার আগুনে পুড়ে ছাই

3

পিরোজপুর শহরের হাসপাতাল সড়কে পুলিশ সুপারের বাসার বিপরীতে আগুনে একটি টিনসেট ঘরে আইনজীবী এ্যাডভোকেট শ ম হায়দার আলী ও এ্যাডভোকেট রতন লাল দত্ত’র চেম্বার পুড়ে গেছে। মঙ্গলবার রাত ২ টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আবু জাফর।

ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আবু জাফর জানান, মঙ্গলবার রাতে হাসপাতাল সড়কে একটি কাঠের ঘরে অগ্নিকান্ড দেখে একজন পুলিশ সদস্য ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। পিরোজপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের সদস্যরা ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। আগুনে পুড়ে যাওয়া ঘরটিতে দুইজন আইনজীবী এ্যাডভোকেট শ ম হায়দার আলী ও এ্যাডভোকেট রতন লাল দত্ত’র চেম্বারে থাকা চেয়ার, টেবিল, আলমারি, বই, মামলার নথি পুড়ে যায়। এতে তাদের কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনে পুড়ে যাওয়া ঘরটির পাশে থাকা দুইটি ফ্যামিলি বাসা কে পুড়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করা গেছে।

পৌর কাউন্সিলর সাদউল্লাহ লিটন জানান, আগুন লাগার কিছু সময়ের মধ্যেই ঘরটি পুড়ে ভস্মিভুত হয়ে যায়। তবে ধারনা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিসের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। তবে পাকা কাছের ঘরটি একদম পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আবু জাফর আরো জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। তবে তদন্ত করে এ বিষয়টি বিস্তারিত জানানো বলা যাবে কিভাবে আগুনের সূত্রপাত হলো। আগুনে কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

শিশু নির্যাতন করল আ’লীগ নেতা, ফেসবুকে ভিডিও

3

নড়াইলে আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার (৯ মে) রাতে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফেসবুকে পোষ্ট করা হলে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। এর পরই বিষয়টি সকলের নজরে আসে।

অভিযুক্ত শাহ মো. ফোরকান মোল্যা, নড়াগাতী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাঐসোনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান।

ভিডিওটিতে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান ফোরকান মোল্যা শিশুটিকে ব্যাপক মারধরসহ লাথি মারছেন আর গালিগালাজ করছেন। এ সময় সাথে থাকা অপর ব্যক্তিও ওই শিশুটিকে মারধর করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নড়াগাতি থানার বাঐসোনা ইউনিয়নের মধুপুর এলাকায় সুপারি চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিশুটিকে ব্যাপক মারধর করা হয়। এ মারধরের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন মহলে নিন্দার ঝড় উঠে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা শাহ মো. ফোরকান মোল্যা চড় থাবার কথা স্বীকার করে প্রতি পক্ষের ওপর দোষ চাপিয়ে বলেন, আমি ওকে বাঁচিয়ে দিয়েছি। একটু মারধোর করে তার অভিভাবকের কাছে তুলে দিয়েছি। তা না হলে ওরা ওকে মেরে ফেলতো।

এ বিষয়ে নড়াগাতির থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রোকসানা খাতুন জানান, নির্যাতনের বিষয়টি জানতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী শিশুটির পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জুভেন্তাসকে কড়া হুঁশিয়ারি ইতালিয়ান ফুটবলের

2173

ইউরোপিয়ান ফুটবলে সুপার লিগের আগুন এখনও নেভেনি। যদিও এই লিগ আলোর মুখ দেখার আগেই অন্ধকারে হারিয়ে গেছে অনেকটা। যে ১২ ক্লাব মিলে ইউরোপিয়ান লিগ চালু করার কথা ছিল তারমধ্যে ৯টি ক্লাব মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

বাকি তিন ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও জুভেন্তাস এখনও ঝুলে আছে। কিন্তু কোন আশায়?

এরইমধ্যে সোমবার ইতালিয়ান ফুটবল ফেডারেশন প্রধান গাব্রিয়েল গ্রাভিনা জুভেন্তাসকে কড়াভাবে জানিয়ে দিয়েছে, ইউরোপিয়ান লিগ না ছাড়লে ‘সিরি আ’ থেকে বহিষ্কৃত করা হবে।

সিরি আ-তে টানা নয়বারের চ্যাম্পিয়নদের উদ্দেশ্য করে ইতালীয় একটি রেডিওতে গ্রাভিনা বলেছেন, ‘জুভেন্তাস যদি তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসে তবে এবং আগামী মৌসুমেও যদি একই সিদ্ধান্তে অটল থাকে তবে তাদের ‘সিরি আ’ তে অংশ নিতে দেয়া হবে না।’

গ্রাভিনা আরও বলেছেন, ‘সমর্থকদের জন্য এটা কষ্টের হলেও আমাদের কিছু করার থাকবে না। আশা করি জুভেন্তাস দ্রুতই তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসবে।’

এই তিন ক্লাবের এমন সিদ্ধান্তের কারণ আর্থিক। ইউরোপের এই ক্লাবগুলোই সবচেয়ে বেশি আর্থিক সংকটে ভুগছে। সম্প্রতি ফিফা এবং উয়েফাও কড়াভাবে জানিয়ে দিয়েছে সুপার লিগ থেকে সরে আসতে।

এদিকে যে ৯ ক্লাব ইউরোপিয়ান লিগ ছেড়েছে সবাই ‘ক্লাব কমিটমেন্ট ডিক্লারেশন’ এ স্বাক্ষর করেছে বলে গত শুক্রবার বিবৃতি দিয়ে জানায় উয়েফা।

Dhaka, BD
haze
27 ° C
27 °
27 °
78 %
1.5kmh
75 %
শনি
27 °
রবি
37 °
সোম
40 °
মঙ্গল
40 °
বুধ
40 °

সর্বাধিক পঠিত