29 C
Dhaka, BD
Home Blog

পাবনায় স্কয়ার গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতার নামে সড়কের নামকরণ

0

স্কয়ার গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত চেয়ারম্যান স্যামসন এইচ চৌধুরীর জন্মদিনে পাবনার সুজানগর পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে তাঁর নামে পৌর এলাকার একটি সড়কের নামকরণ এবং দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে এ সড়কের নাম ফলক উন্মোচন করেন স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক মুক্তিযোদ্ধা অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু।

এছাড়া তিনি মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদানের জন্য শহীদ ইব্রাহিম মোস্তফা কামাল দুলালের নামে পৌর এলাকায় আরেকটি সড়কের নাম ফলক উন্মোচন করেন।

পরে সুজানগর উপজেলা মিলনায়তনে এক মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান এবং তাদের অবদানের যথাযথ স্বীকৃতি দিয়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীনের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমান হাবিব, সুজানগরের পৌর মেয়র রেজাউল করিম রেজাসহ স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা নেতারা।

চলাচলের রাস্তা চেয়ে এলাকাবাসীর সংবাদ সম্মেলন

0

সাভারের আশুলিয়ায় এলাকাবাসী ও জনগণের চলাচলের একমাত্র সরকারি রেকর্ডকৃত ২০ ফুট প্রশস্ত রাস্তা দখলকারীর হাত থেকে মুক্ত করা ও অবৈধ স্থাপনা অপসারণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগীরা।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আশুলিয়া প্রেসক্লাব হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আশুলিয়ার বাইপাইলের বুড়ি বাজার এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মো. ফিরোজ কবির আকাশ। লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, বাইপাইল এলাকার তিনিসহ ইঞ্জিনিয়ার মো. রুহুল আমিন, মিসেস সালমা নাসরিন, ডা. রেহানা নাসরিন, মিসেস রুবানা নাসরিন, আর্কিটেক মো. নাফিজুর রহমান, প্রফেসর মেরিনা নাসরিন ও আছিয়া নাসরিন আশুলিয়ার বাইপাইলস্থ বুড়ির বাজার মেইনরোড সংলগ্ন সাব রোডে সাতজনের মালিকানাধীন ৪টি ভাড়াটিয়া কলোনিসহ একটি চারতলা বাড়ি রয়েছে। যেখানে প্রায় তিন শতাধিক মানুষের বসবাস। বাড়িগুলোতে যাতায়াতের জন্য বাড়ির সম্মুখ বরাবরে ২০ ফুট প্রশস্ত একটি রাস্তা ছিল। কিন্তু আশুলিয়ার উত্তর গাজীরটেক এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে মানিক মিয়া ১০ ফুট রাস্তা দখল করে কারখানা নির্মাণ করেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে বিএস রেকর্ডের সময় ১০ ফুট প্রশস্ত রাস্তা রেকর্ডভুক্ত হয়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো জানান, কিন্তু দুই মাস আগে তিনি তিন শতাধিক মানুষের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটির মাঝখানে একটি সেমিপাকা দোকান নির্মাণ করে রাস্তার বাকি অংশ বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে এখানে বসবাসরত অধিকাংশ শ্রমিক ভাড়া বাসা ছেড়ে দিয়ে অন্যত্র চলে গেছে ও বাড়ির মালিকরা বন্দি জীবনযাপন করছেন।

এছাড়া সম্প্রতি মানিক মিয়া ওই রাস্তার পাশে বহুতল একটি ভবন নির্মাণ করছেন। যার উপকরণসমূহ রাস্তার ওপর রাখায় চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছেন। এসব ঘটনায় গত ২২ আগস্ট আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীরা।

গত ৩১ আগস্ট সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দায়ের করলে গত ২ সেপ্টেম্বর বাইপাইল মৌজাস্থিত বুড়ির বাজার মেইন রোড সংলগ্ন সাব-রোডে বিআরএস ৪৫৭৭, ৪৫৭৫ এবং ৪৫৭৬ দাগের রেকর্ডীয় সরকারি রাস্তাটি পরিমাপ করে পূনরুদ্ধারের নির্দেশ দেন। এবং সাভার ক্যান্টনমেন্টে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণে জন্য ভুক্তোভোগীরা অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ক্যান্টনমেন্টের সি ই ও সরেজমিনে তদন্ত করে তার নির্মাণাধীন ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে সাতদিনের মধ্যে সশরীরে হাজির হয়ে বিষয়টি ব্যখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেন। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে সহকারী কমিশনার ভূমি আশুলিয়া সার্কেলকে প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য অনুরোধ করেন।

তারা জানান, মানিক মিয়া গ্যাস সরবরাহ প্ইাপ লাইনের ওপর আবাসিক ভবণ নির্মাণ করেছেন। যেকোন মুহূতে দুর্ঘটনার সম্ভবনা রয়েছে। এসব অপর্কমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে আহ্বান জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থতি ছিলেন ভুক্তভোগী জাহাঙ্গীর আলম, ইঞ্জিনিয়ার রহুল আমীন, মো. সহীরউদ্দিন মিয়া, জহির উদ্দিন মিয়া প্রমুখ।

শতভাগ স্বচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণকাজ শেষ করা হবে: ওবায়দুল কাদের

2

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজে কোনো প্রকার নয়-ছয় করার সুযোগ নেই বলে দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) আশুলিয়ায় ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ প্রকল্পের ‘স্ট্যাটিক লোড টেস্ট’র জন্য পাইলট পাইল বোরিং কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, আমি পরিষ্কার বলে দিতে চাই, শতভাগ স্বচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণকাজ শেষ করা হবে। এখানে কোনো নয়-ছয় করার সুযোগ নেই। মন্ত্রী জানান, ২০২৬ সালের জুনের ভেতর শেষ হবে ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজ। প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি হচ্ছে ঢাকার এই দ্বিতীয় এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে।

তিনি বলেন, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এ প্রকল্পের লোনচুক্তি সম্পন্ন হবে। আমাদের তহবিল সংক্রান্ত কোনো সমস্যা নেই।

চলাচলের সুবিধার্থে বর্তমান রাস্তাটিও রেখে দেওয়ার সুপারিশ করে মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে যে রাস্তাটি আছে, এটা যেভাবে আছে থাকুক। অনেক মানুষ বিকল্প পথ হিসেবে এটি ব্যবহার করে। এখানে মানুষের যেন ভোগান্তি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। রাস্তা যেন ব্যবহারের উপযোগী থাকে।

অনুষ্ঠানে ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের প্রকল্প পরিচালক মো. শাহাবুদ্দিন খান, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ফারুক হাসান তুহিনসহ প্রকল্পের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাঁশখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

0

বাঁশখালীতে সিএনজি অটোরিকশা-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন এক মোটরসাইকেল আরোহী।

নিহত ছৈয়দুল ইসলাম (৩৮) হাটহাজারী এলাকার বাসিন্দা তাজুল ইসলামের পুত্র এবং দুবাই প্রবাসী। তার ৫ বছর ও এক বছর বয়সী দুই কন্যা সন্তান র‌য়ে‌ছে।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে চাম্বল ইউনিয়নের চাম্বল দারুল উলুম আইনুল ইসলাম বড় মাদ্রাসার সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন হতাহতদের উদ্ধার করে বাঁশখালী স্কয়ার ক্লিনিকে নিয়ে যায়।

নিহতের চাচাতো ভাই সো‌লেমান পাশা চৌধুরী জানান, ছৈয়দুল ইসলাম তার প্রতি‌বে‌শীকে নি‌য়ে কুতুব‌দিয়ায় মা‌লেক শাহ’র কবর জেয়ারতে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনার শিকার হন। তিনি দুবাইয়ের সারজায় চাকরি করতেন। লকডাউ‌নের কার‌নে এতদিন ফির‌তে পারেননি। আগামী সপ্তা‌হে তার দুবাই ফি‌রে যাওয়ার কথা ছিল।

স্কয়ার ক্লিনিকের চিকিৎসক ডা. জাবেদুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশংকাজনক অবস্থায় ছৈয়দুল ইসলামকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় দুপুর ১২টার দি‌কে তার মৃত্যু হয় বলে শুনেছি।

২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় আরও ৮ হাজার ৩৯৮ জনের মৃত্যু

0

প্রাণঘাতী রোগ করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ ও মৃত্যু কমেছে বিশ্বে, সেই সঙ্গে কমেছে সুস্থতার হারও। মহামারি শুরুর পর থেকে এ রোগে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হালনাগাদ তথ্য প্রদানকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের পরিসংখ্যান বলছে, শুক্রবার বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৯৭ হাজার ৩৭৬ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৩৯৮ জনের। তাছাড়া, এই দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লাখ ২১ হাজার ৮৯৪ জন।

আগের দিন, বৃহস্পতিবার বিশ্বে করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ৫ লাখ ২২ হাজার ১২৩ জন। ওইদিন এ রোগে মারা গিয়েছিলেন ৯ হাজার ৮৬৯ জন এবং সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৪ লাখ ৯০ হাজার ৯৬৭ জন।

অর্থাৎ, ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ২৪ হাজার ৭৪৭জন এবং মৃতের সংখ্যা কমেছে ১ হাজার ৪৭১ জন।

পাশাপাশি, এই সময়সীমার মধ্যে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা কমেছে ৬৯ হাজার ৭৩ জন।

বৃহস্পতিবারের মতো শুক্রবারও করোনায় নতুন আক্রান্ত ও মৃত্যুর হিসেবে বিশ্বের দেশসমূহের মধ্যে শীর্ষে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, এই দিন দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩০ হাজার ৭৭৫ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন ১ হাজার ৯৯০ জন।

যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া অন্যান্য যেসব দেশে করোনায় সংক্রমণ-মৃত্যুর উচ্চহার দেখা গেছে সে দেশগুলো হলো – যুক্তরাজ্য (নতুন রোগী ৩৫ হাজার ৬২৩, মৃত্যু ১৮০), ভারত (নতুন রোগী ২৯ হাজার ৫৮০, মৃত্যু ২৯১), তুরস্ক (নতুন রোগী ২৭ হাজার ১৯৭, ‍মৃত্যু ২২১), রাশিয়া (নতুন রোগী ২১ হাজার ৩৭৯, মৃত্যু ৮২৮) এবং ব্রাজিল (নতুন রোগী ১৯ হাজার ৪৩৮, মৃত্যু ৬৮০)।

২০২০ সালে মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত করোনায় বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২৩ কোটি ১৮ লাখ ৬৪ হাজার ৮২৬ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন মোট ৪৭ লাখ ৫০ হাজার ৪৯৪ জন।

এছাড়া, মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ২০ কোটি ৮৪ লাখ ৫৫ হাজার ৮২২ জন।

বর্তমানে বিশ্বে সক্রিয় করোনারোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮৬ লাখ ৫৮ হাজার ৫১০। এই রোগীদের মধ্যে মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ১ কোটি ৮৫ লাখ ৬৩ হাজার ৯৫ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৯৫ হাজার ৫১৮ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছিল চীনে।

কুবির বাস স্টাফদের ওপর অ্যাম্বুলেন্স সিন্ডিকেটের হামলা

2

অ্যাম্বুলেন্স চালকদের সিন্ডিকেটের হামলায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বাসের চালক ও সহকারী গুরুতর আহত হয়েছেন।

বুধবার ( ২২ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টায় কুমিল্লা টাওয়ার হাসপাতালের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বাস নগরীর টমছম ব্রিজ থেকে কান্দিরপাড় আসছিল। এ সময় কান্দিরপাড় থেকে মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালের উদ্দেশ্যে যাওয়া কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি অ্যাম্বুলেন্স যানজট উপেক্ষা করে সরাসরি হাসপাতালে প্রবেশের চেষ্টা করে।

এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস স্টাফ ও অ্যাম্বুলেন্স চালকের মধ্যে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ৫ থেকে ৭ জন ব্যক্তি বাসের হেলপার আব্দুস সাত্তারকে টেনে বাস থেকে নামিয়ে মারধর করে। এ সময় বাসটি রাস্তায় প্রায় ১ ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকে।

এ ব্যাপারে পরিবহণ পুলের কর্মকর্তা জাহিদুল আলম বলেন, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়ে দেখি আমাদের বাসের সহযোগীকে অনেক মারধর করা হয়েছে। তাকে সেখান থেকে টাওয়ার হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। সে এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আর উক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা কোতোয়ালি থানায় আমরা একটি অভিযোগ দাখিল করেছি।

হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আমরা ঘটনাস্থলে যাই। ঘটনার পর পরই অ্যাম্বুলেন্স চালক ও সহযোগী পলাতক। অ্যাম্বুলেন্স কোতোয়ালি থানায় জব্দ করা হয়েছে। একজন পুলিশ সদস্যকে সিসিটিভি ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে অপরাধীদের দ্রুত শনাক্ত করার জন্য বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা কোতোয়ালি থানা এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে জরুরি মিটিং করেছি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান এম্বুলেন্স সিন্ডিকেটটি তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। সিন্ডিকেট ভঙ্গের জন্য তারা পুলিশের কাছে আইনি সহায়তা চেয়েছেন। পাশাপাশি আহত স্টাফের বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজীম বলেন, কথা কাটাকাটির জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস সহকারীকে অ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভার মেরেছে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সম্ভবত কসবা থানার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভার। আর এ ঘটনাটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরেই আরও একবার কুমিল্লা টাওয়ার হাসপাতাল থেকে অসুস্থ বাবাকে ঢাকা নেয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্স চালকদের সিন্ডিকেটের হাতে লাঞ্ছিত ও আহত হয়েছিলেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী। তখনো এই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে উল্লেখযোগ্য কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

কার্ডে নামের আগে আলহাজ না লেখায় ৫ জনকে কুপিয়ে জখম

0

নাটোরের গুরুদাসপুরে হালখাতার কার্ডে নামের আগে আলহাজ না লেখায় নারীসহ পাঁচ জনকে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে জখম করার অভিযোগ ওঠেছে প্রতিবেশী আমিনুল হক নামে এক ব্যক্তির পরিবারের বিরুদ্ধে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার ধারাবারিষা ইউনিয়নের দাদুয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন- আনোয়ার হোসেন, রিক্তা খাতুন, সাহাবুল ইসলাম, আবু জাফর আলী ও অন্তঃসত্ত্বা নারী সুফিয়া বেগম। গুরুতর আহত অবস্থায় তারা গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন।

জানা গেছে, দাদুয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের সিট কাপড়ের দোকানে বকেয়া ছিল প্রতিবেশী আমিনুল হকের। সে বকেয়ার হালখাতার কার্ডে নামের আগে আলহাজ না লেখায় তার স্বজনদের ক্ষোভ ছিল দোকানি আনোয়ার হোসেনের ওপর। সে সূত্র ধরেই বুধবার সকালে দাদুয়া গ্রামের জিয়ারুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, কামাল হোসেন, রঞ্জু ইসলাম, কিরণ, স্বপন আলীসহ প্রায় ৩০ জন লোক ধারালো অস্ত্র নিয়ে দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেন।

এ সময় তারা দোকানে থাকা নগদ টাকাসহ মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যান। প্রতিবাদ করতে গেলে তারা ভুক্তভোগী ব্যক্তিদের কুপিয়ে রক্তাক্ত করেন।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল মতিন বলেন, এ ঘটনায় এখনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভিওআইপি সরঞ্জামসহ আটক ১

11

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এলাকা থেকে অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামাদিসহ চক্রের একজনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১০)। তবে প্রাথমিকভাবে আটক আসামীর নাম পরিচয় জানা যায়নি।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) শেরেবাংলা নগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। র‌্যাব-১০ এর এএসপি মো. এনায়েত কবীর সোয়েব বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, এবিষয়ে বুধবার বিকেল ০৪ টার দিকে যাত্রাবাড়ির ধলপুরে র‌্যাব-১০ এর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা জাতীয়করণের দাবি

0

বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসাগুলোকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো জাতীয়করণের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষক সমিতি।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক গোলটেবিল বৈঠক থেকে এ দাবি জানানো হয়।

বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও ধর্ম বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান আল্লামা শায়খ খন্দকার গোলাম মাওলা নকশাবন্দী।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন—সমিতির সভাপতি কাজী ফয়জুর রহমান, মহাসচিব কাজী মখলেসুর রহমানসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় সংগঠন এবং মাদরাসার শিক্ষক, কর্মকর্তা ও নেতারা।

বক্তারা বলেন, ইসলামি শিক্ষার বুনিয়াদ হচ্ছে ইবতেদায়ি মাদরাসা। মাদরাসা শিক্ষাকে যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন দেওয়া হয়। বাংলাদেশের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তাল মেলাতে এনসিটিবি কর্তৃক প্রকাশিত শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক অনুযায়ী কুরআন-সুন্নাহ এবং আরবি ভাষায় শিক্ষাদানের পাশাপাশি প্রাথমিক শিক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, বিজ্ঞান পাঠদান করে আসছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তরের অধীনে প্রাইমারির মতো শিক্ষার্থীদের সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ, বৃত্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ, পঞ্চম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হওয়ার পর দাখিল মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়। প্রাথমিকের মত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে উপবৃত্তি দেওয়ার ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

বক্তারা বলেন, প্রাথমিকের মতো সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের এই মাদরাসাগুলোতে পাঠদান করা হয়। সরকারের বিভিন্ন কাজে প্রাইমারি শিক্ষকদের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকরাও সহযোগিতা করে থাকেন। প্রাইমারি শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করার পরেও ২০১৩ সালে বর্তমান সরকার ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে। অথচ মাত্র ১ হাজার ৫১৯টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকরা নামমাত্র ভাতা পান। এ অবস্থায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসাগুলো মুজিববর্ষে জাতীয়করণের দাবি জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা বিনিময়

12

গত ২১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৩ টা ৩০ মিনিটে পর্তুগালে লিসবন অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের হলরুমে রাষ্ট্রদূত জনাব তারিক আহসান এবং দ্বিতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল রাজি এর সহিত পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লবের সদস্যদের একটি শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাবের সদস্যদের এবং রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের পরিচয় পর্বের মাধ্যমে আলোচনা শুরু হয়। সূচনা বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত জনাব তারিক আহসান তার বিগত দিনগুলোর বর্ণিল পেশাগত জীবনের বৃত্তান্ত তুলে ধরেন এবং পর্তুগালে অবস্থিত প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন ।

উপস্থিত পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাবের সদস্য বৃন্দ পর্তুগালে বাংলাদেশ কমিউনিটি এবং বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণে তাদের ইতিপূর্বের কর্মকাণ্ড রাষ্ট্রদূতের কাছে উপস্থাপন করেন। তারা বলেন পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাব সৃষ্টি হয়েছে সকলের সমন্বয়ে পর্তুগালে একটি সুষ্ঠু সুন্দর বাংলাদেশ কমিউনিটি গড়ে তোলার জন্য সহায়ক ভূমিকা পালন করা।

এছাড়া তারা আশা প্রকাশ করেন পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাব পর্তুগালে প্রবাসী বাংলাদেশিদর বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা যেমন এখানে বসবাসরত শিশুদের বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার জন্য বাংলা স্কুল প্রতিষ্ঠা করা, কমিউনিটি ক্লাব গঠনসহ মানবিক সহযোগীতা মূলক কর্মকান্ড করার বিষয়ে সর্বাত্মক ভূমিকা পালন করবে । বক্তারা এ বিষয়ে বাংলাদেশ দূতাবাসের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

Dhaka, BD
haze
29 ° C
29 °
29 °
79 %
2.1kmh
40 %
শনি
29 °
রবি
33 °
সোম
30 °
মঙ্গল
32 °
বুধ
30 °

সর্বাধিক পঠিত