ভিনগ্রহের প্রাণী আসছে পৃথিবীতে?‌ মিলছে সংকেত!

1742
13744

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেক্স: তবে কি ভিনগ্রহের প্রাণীরাই বারবার সংকেত পাঠাচ্ছে?‌ ভিনগ্রহের বাসিন্দারাই কি তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাচ্ছে?‌ সম্প্রতি দূরবীক্ষণ যন্ত্রে এমনই একটি সংকেত ধরা পড়েছে, যার ফলে এই প্রশ্নগুলোই মাথাচাড়া দিচ্ছে বিজ্ঞানী ও মহাকাশ গবেষকদের মধ্যে।‌

এই মহাবিশ্ব নিয়ে আবিষ্কারের শেষ নেই। প্রাচীনকাল থেকে মানুষ এই মহাবিশ্বের রহস্য জানার মোহে আচ্ছন্ন হয়ে আছে। মানুষ অনেকাংশেই সফল হয়েছে। এরপরও অনেক বিষয় অজানাই রয়েছে গেছে।

এ নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে কৌতূহলের কোনো সীমা নেই। এই মহাবিশ্বে আর কোথায় প্রাণের অস্তিত্ব রয়েছে?‌ বিজ্ঞানী ও গবেষকরা দীর্ঘদিন ধরেই এ বিষয়টি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সহ বিশ্বের একাধিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা বার বার জানিয়েছেন, যে কয়েক আলোকবর্ষ দূর থেকে বেশকিছু সংকেত ধরা পড়ছে। মহাকাশে প্রতিনিয়ত কী ঘটে চলেছে, তা পর্যবেক্ষণ করার জন্য মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রগুলোতে শক্তিশালী দূরবীক্ষণ যন্ত্র বসানো থাকে।

জানা যায়, সম্প্রতি ওই দূরবীক্ষণ যন্ত্রেই ধরা পড়ছে কয়েক আলোকবর্ষ দূরে থাকা কোনো এক ছায়াপথে ঘূর্ণায়মান গ্রহ থেকে পাঠানো একটি সংকেত। এ রকম বহু সংকেত বিজ্ঞানীদের কাছে এসে পৌঁছেছে। আর এ কারণেই দিনের পর দিন কৌতুহল বেড়েছে বিজ্ঞানীদের মধ্যে।

কিন্তু বিজ্ঞানীরা এখনো দ্বিধা-দ্বন্দ্বে আছেন, ওই দূরবীক্ষণ যন্ত্রের এই সংকেত আসলেই কি ভিনগ্রহের বাসিন্দাদের পাঠানো নাকি মহাকাশে ঘটে যাওয়া কোনো বিস্ফোরণ ধরা পড়ছে। বিজ্ঞানীরা তা নিয়ে দ্বন্দ্বে রয়েছেন। এর আগে, ২০০৭ সালে প্রথম এই ধরনের সংকেত ধরা পড়েছিল। তার ঠিক ৫ বছর পর একই রকম আরও একটি সংকেত ধরা পড়ে। জানা গেছে, এখন পর্যন্ত মোট ১২টি এই ধরনের সংকেত মহাকাশ থেকে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

1742 COMMENTS

  1. After looking into a number of the blog articles on your web page, I honestly appreciate your technique of writing a blog. I added it to my bookmark site list and will be checking back in the near future. Please visit my web site as well and let me know your opinion.|