নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

9
470

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (নোবিপ্রবিসাস) অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ জুলাই) নোবিপ্রবির অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও সহকারী প্রক্টর মজনুর রহমানকে এই তদন্ত কমিটির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নোবিপ্রবির প্রক্টর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর জানান, সহকারী প্রক্টর মজনুর রহমানকে প্রধান করে এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আগেই উনাকে মৌখিকভাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল এবং কাজ শুরু করে দিয়েছেন। অফিস আদেশের মাধ্যমে তাকে আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব দেওয়া হলো।’ এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই ভাংচুরের তদন্তে প্রয়োজন অনুসারে তাকে সহযোগিতা করবে।

এ ব্যাপারে সহকারী প্রক্টর মজনুর রহমান বলেন, ‘বিকেলে নোটিশ হওয়ার কথা, আমি এখনো হাতে পাইনি। হাতে পেলেই তদন্ত কার্যক্রম শুরু করবো।’

এর আগে গত হস্পতিবার (১৬ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটোরিয়ামের ২য় তলায় দপ্তর ভাঙচুর অবস্থায় পেয়েছেন সমিতির সদস্যরা। তারা জানান, করোনা সংক্রমণের শুরুতে মার্চ মাসের শেষ দিক থেকে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় দপ্তরে কারো আসা হয়নি। এদিন বিশেষ কাজে দপ্তরে গেলে ভাঙচুর অবস্থায় পাওয়া যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ এই দপ্তর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভাঙচুরের এই ঘটনায় দপ্তরের মূল ফটকে থাকা সংগঠনের নাম সম্বলিত সাইনবোর্ডটি ভেঙ্গে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও অফিসের ভিতরে থাকা গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্রে হামলা করার চেষ্টা চালায়।

এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দ্রুত সময়ের মধ্যে দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

এছাড়াও এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে নোবিপ্রবির ছাত্র সংগঠন, শিক্ষকদের সংগঠন এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের সাংবাদিক সংগঠনসহ ৪০টির অধিক সংগঠন।

9 COMMENTS

Comments are closed.