খোকসা পৌরবাসীর নাগরিক সেবাদানে সচিবের অনবদ্য ভূমিকা

23
724

খোকসা পৌর সচিব আব্দুল হান্নান এর অনবদ্য দূরদর্শীকতায় পৌরবাসীর অনেক সমস্যায় এখন সমাধান হয়েছে। বর্তমান সরকারের ডিজিটাল কার্যক্রমের আওতায় পৌরবাসী ঘরে বসে তাদের নাগরিক সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারছেন তেমনি অনলাইন পদ্ধতিতে পৌর ট্যাক্স ও অন্যান্য বিল পরিশোধ করতে পারছেন।

২০০১ সালে খোকসা পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্ন চড়াই-উতরাই পেরিয়ে বর্তমান সচিব ও পৌরমেয়রের দূরদর্শীকতায় পৌর নিজস্ব ভবনে পৌরবাসীর নাগরিক সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
বর্তমান সচিব আব্দুল হান্নান এর সময় পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়মিত বেতন-ভাতা পরিশোধের জন্য টেক্স অ্যাসেসমেন্ট করে পৌরবাসীর ট্রাক্স গুলো সহজভাবে ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করতে পারে সে পরিবেশ তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ম চালু করার কারনে অন্য অর্থবছরের তুলনায় পৌর ট্রাক্স বেশী আদায় হয়েছে।

একই সাথে সময়ের দাবিতে পৌরবাসীর সেবা করতে এ অর্থ বিভিন্ন সময়ে ব্যায় কল্পে ভারসাম্য রক্ষায় সচিবের বড় ভুমিকা দেখাগেছে।

কিছু স্বার্থন্বেষী মহলের বিভিন্ন প্রভাকান্ড পৌরবাসীর এ সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ব্যাহত করতে বিভিন্ন রকম অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে বলেন পৌর সচিব আবদুল হান্নান।

সাম্প্রতিকতা মহামারীর কারণে পৌরসভা স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পৌরসভার পক্ষ থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিভিন্ন উপকরণ পিপি, মাস্ক, মৃত্যু ব্যাক্তি দাফন কার্জ উপকরণ সহ জনসচেতনতায় মাইকিং প্রতিনিয়ত করা হচ্ছে বলে জানান পৌর মেয়র প্রভাষক তারিকুল ইসলাম তারিক।

এছাড়াও পৌরবাসীর বিভিন্ন উন্নয়নকল্পে প্রতিটা প্রকল্পের আওতায় নির্ধারিত মেয়র- কমিশনারদের সমন্বয়ে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। স্ব-স্ব দপ্তরের সরকারের বিভিন্ন আদেশ-নিষেধের মধ্য দিয়ে তাদের কার্য পরিচালিত হয়। এখানে পৌরসভার সচিব সহ কোন কর্মকর্তা বা কর্মচারীর অনিয়মের সুযোগ নাই বলেও তিনি দাবি করেন।

এক প্রশ্নের জবাবে পৌর সচিব জানান, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের পৌর আইনের সরকারের দায়িত্ব বাহক একজন পৌরসভার সচিব শুধুমাত্র তার রুটিন কার্যক্রম পরিচালনায় সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সিন অফ কমান্ড এর মাধ্যমে পৌর মেয়র এর নির্দেশনায় পরিচালিত হবে বলেও তিনি জানান।

23 COMMENTS

Comments are closed.